ফেসবুক প্রোফাইলে ভেরিফাইড নীল ব্যাজ কিভাবে পাবেন ?

Tamim Islam

31 May, 2021 | 9 : 46 pm

ফেসবুকে অনেকের প্রোফাইল বা পেজের নামের পাশে নীল বৃত্তাকারে সাদা টিক চিহ্ন! কিন্তু কেন?

এমন প্রশ্ন মনে হতে পারে। কারণ সবার নামের পাশে তো এমনটি নেই।ফেসবুকে নীল বৃত্তাকারে সাদা এই টিক চিহ্নকে বলা হয় নীল ব্যাজ। যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করে প্রোফাইল বা পেজ ‘ভেরিফাইড’ করলে এই নীল ব্যাজ পাওয়া যায়। প্রোফাইল বা পেজের সত্যতা নিশ্চিতকরণ ও গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে দীর্ঘদিন ধরেই এই সুবিধা দিচ্ছে ফেসবুক।

প্রোফাইল বা পেইজের পোস্ট ব্যবহারকারীদের কাছে গ্রহণযোগ্য করতে সাহায্য করে এই নীল-ব্যাজ। সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ, তারকা হিসেবে সহজেই ফেসবুক প্রোফাইল ভেরিফাইড করা যায়। এছাড়া নির্ধারিত ক্যাটাগরির ফেসবুক পেইজও ভেরিফাইড করা সম্ভব।

ভেরিফিকেশন করার আলাদা সুবিধা কি ?

বাংলাদেশের মত দেশ গুলিতে প্রত্যেকদিন ফেসবুকের ইউজার সংখ্যা বেড়েই চলছে। তার ফলে এখানে অনেকেই ফেক বা নকল আইডি বা একের বেশি অ্যাকাউন্ট খুলে এই প্ল্যাটফর্মকে স্পামিং বা নোংরা করে। তাই ফেসবুক আনভেরিফাইড একাউন্ট চিহ্নিত করে সেগুলো ব্লক বা ডিজেবল করে দেয়।

ফলে, যেসব ইউজারদের একের অধিক একাউন্ট ,আইডির মধ্যে কোন অবৈধ অ্যাক্টিভিটি বা কাজ করলে,আবার আইডির উপর বার বার কেউ রিপোর্ট করে অথবা ফেসবুক যদি বুঝতে পারে সেই একাউন্ট ফেসবুক ডিজেবল বা ব্লক করে দেয় । এবং সেই একাউন্ট পুনরায় ফিরে পেতে ইউজারকে ফেসবুক দ্বারা আইডেন্টি ভেরিফাই (ন্যাশনাল আইডি কার্ড) এর প্রমাণ দ্বারা সঠিক পরিচয় দিতে হয়।

যদি, সেই অ্যাকাউন্টের মালিক সঠিক প্রমাণ দিতে না পারে তাহলে, ফেসবুক সেই একাউন্ট চিরদিনের জন্য ব্লক করে দেয়।

কিন্তু আপনার যদি সেই আইডি বা অ্যাকাউন্ট আগের থেকে আইডেন্টি ভেরিফাই করা থাকে তাহলে ফেসবুক বুঝবে এটি কোন আসল ইউজারের আইডি,ফেক আইডি নয় । ফলে সেই একাউন্ট ফেসবুক ডিজেবল বা ব্লক করবে না।

তাই যেসব ইউজারদের আসল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আছে, এবং এই ধরনের বিভিন্ন ঝামেলা-ঝঞ্জাট ও নিজের আইডি কে সুরক্ষিত রাখতে চান, তাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট অবশ্যই ভেরিফাইড থাকা দরকার।

বিশ্বে ৩১ লাখ পদ খালি সাইবার নিরাপত্তা খাতে

দ্বিতীয়তঃ 

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আরো বেশি সিকিউরড হয়ে যাবে। সেটা কিভাবে ?

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আইডেন্টি Verification করার পর সেখানে Twofactor Authentication (2FA) অ্যাক্টিভ হয়ে যাবে।এর ফলে আপনার ফেসবুক পাসওয়ার্ড চুরি হয়ে গেলেও কেউ সেই একাউন্ট এর মধ্যে লগইন করতে পারবে না। কারণ এই Twofactor authentication (2FA) এর মধ্যে দিয়ে আপনার রেজিস্টারড মোবাইলে ওটিপি (OTP) যাওয়ার পরে সেই একাউন্ট ওপেন করতে পারবেন এবং এর ফলে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আরও বেশি সিকিউরড বা নিরাপদ হয়ে যাবে।

তৃতীয়ত: 

ফেসবুকের কাছে সেই একাউন্টটি আর অপরিচিত থাকবেন না।কারণ ইউজার ভেরিফিকেশন করার পর সেই ID ফেসবুকের কাছে একটি পরিচিত ইউজার হিসেবে গৃহীত হবে। 

ফলে ভবিষ্যতে ফেসবুক যদি সেই ID প্রতি কোন স্টেপ নেয় ,তাহলে এই দিক গুলি অবশ্যই বিবেচনা করে দেখবে। এবং এর আলাদা সুবিধে পাওয়া যাবে। 

তাহলে আমরা বিস্তারিত জানলাম ফেসবুক ভেরিফিকেশন করার কি সুবিধে রয়েছে। খুব সহজেই যদি ফেসবুকে আপনার নামের পাশে নীল বৃত্তাকারে সাদা টিক চিহ্ন দেখা যায় তাহলে কেমন হয়?

নির্ধারিত নিয়ম অনুসরণ করে প্রোফাইল বা পেজ ভেরিফাইড করলেই নীল-ব্যাজ পাওয়া যায়। প্রোফাইল বা পেইজের সত্যতা নিশ্চিতকরণ ও গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে ফেসবুক দীর্ঘদিন ধরে এমন সুবিধা দিচ্ছে। 

বিনামুল্যের অ্যাপ দিয়ে লোকেশন ট্র্যাকিং কতটুকু নির্ভরযোগ্য?

জেনেনিন ফেসবুক আইডি ভেরিফাইড করার নিয়ম

১. প্রথমে প্রবেশ করুন  এই লিংকটায়

২. এরপর পেইজ বা প্রোফাইল নির্বাচন করুন।

৩. দেশ নির্বাচন করুন।

৪. ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন।

৫. অফিসিয়াল আইডি (যেমন- জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট, ফোন বা ইউটিলিটি বিল ইত্যাদি) এর স্ক্যান কপি আপলোড করুন।

৬. নির্ধারিত বক্সে কেন ভেরিফাই করতে চান তা উল্লেখ করুন।

৭. এই বক্সে আপনার অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের লিংকগুলো দিন।

৮. এবার Send বাটনে ক্লিক করে সাবমিট করুন।

সব তথ্য দিয়ে সাবমিট করার কিছু সময়ের মধ্যেই ফেসবুক আপনার আবেদনের অবস্থা জানাবে।

ফেসবুক আপনার আইডিকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে রিভিউ করে দেখবে এবং সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনার ফেসবুক   আইডি ভেরিফাইড করে দিবে।

কিছুদিন পর একাউন্ট ভেরিফাই হয়ে গেলে আপনি দেখবেন  Personal ID or Notarized Documents এর পশে গ্রীন টিক দেখতে পাবেন।

এছাড়া ফেসবুক এর মধ্যে আপনার একাউন্ট ভেরিফাইড হয়ে গেছে তার একটি নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন। 

Find us more here:

Website:

https://www.canbd.org

LinkedIn:

https://www.linkedin.com/company/canbdorg/

YouTube:

https://www.youtube.com/channel/UC5px2nUYgxiletdr9_6771A

Twitter id:

Instagram:

https://www.instagram.com/canbdorg/

Facebook page:

https://www.facebook.com/canbd.org

Facebook Group:

https://www.facebook.com/groups/canbd.org/


334 Views


5 1 vote
Article Rating
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
Show Buttons
Hide Buttons
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x